ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি স্যার আবদুল কালামের মৃত্যু দিবস পালন

প্রসেনজিৎ বিশ্বাস ; কলকাতা :

এ.পি.জে আবদুল কালাম , যার সম্পূর্ণ নাম আবুল পাকির জয়নুল-আবেদিন আব্দুল কালাম ।  যিনি ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের একাদশ রাষ্ট্রপতি । ১৯৩১ সালের ১৫ অক্টোবর অধুনা ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে জন্মগ্রহণ করেন এবং ২০১৫ সালের আজকের দিনে মেঘালয়ের শিলংয়ে হূদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

      তিনি তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন একজন বিজ্ঞানী হিসেবে । পরে তিনি ঘটনাচক্রে ধর্মনিরপেক্ষ ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন । তিনি পদার্থবিদ্যা এবং বিমান প্রযুক্তিবিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা করেছিলেন । এরপর তিনি ৪০ বছর রক্ষা অনুসন্ধান ও বিকাশ সংগঠন ও ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার বিজ্ঞানী ও বিজ্ঞান প্রশাসক হিসেবে কাজ করেন।

        ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও মহাকাশযান বাহি রকেট উন্নয়নের কাজে তার আবেদনের জন্য তাকে “ভারতের ক্ষেপণাস্ত্র মানব”বা মিসাইল ম্যান অফ ইন্ডিয়া বলা হয় । ১৯৯৮ সালে পোখরান – ২ পরমাণু বোমা পরীক্ষায় তিনি প্রধান ভূমিকা পালন করেন। এটি ছিল স্মাই লিং বুদ্ধ নামে পরিচিত প্রথম পরমাণু বোমা পরীক্ষার পর দ্বিতীয় পরমাণু বোমা পরীক্ষা।

২০০২ সালে তিনি তৎকালীন শাসক দল ভারতীয় জনতা পার্টি , বিরোধী দল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সমর্থনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হন । দীর্ঘ ৫ বছর এই পদে থাকার পর তিনি শিক্ষাবিদ , লেখক ও জনসেবকের সাধারণ জীবন বেছে নেন । ভারতের সর্বোচ্চ সম্মান ভারতরত্ন সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পুরস্কার ও সম্মান তিনি পেয়েছিলেন ।