দ্বিতীয় দফায় লকডাউন নিয়ে চলছে রাজনীতি, অভিযোগ সাধারণ মানুষের

প্রেসনজিত বিশ্বাস ; কলকাতা , ১৩ জুলাই ২০২০ ঃ

দীর্ঘ আড়াই মাস লকডাউন চলার পর, অবশেষে কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ট্রেন বাদ দিয়ে মোটামুটি প্রায়  সব সরকারি-বেসরকারি অফিস, আদালত, বাজার , দোকান সবকিছুই স্বাভাবিক হয়ে গেছে।

কিন্তু করোনা প্রকোপ বাড়তে থাকায়, বিভিন্ন রাজ্যের রাজ্য সরকার, যে সব জায়গাতে করোনা আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেশি পাওয়া যাচ্ছে, সেই সমস্ত জায়গায় আবার লকডাউন এর ঘোষণা করেছেন।

পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি এবং কলকাতার বিভিন্ন এলাকার যে সমস্ত জায়গায় করোনার প্রকোপ বেশি, সেখানে কিছু কিছু এলাকায় সবকিছু বন্ধ করে দিয়ে পুনরায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

 ভবানীপুরে বেশ কিছু এলাকা, যার মধ্যে এলগিন রোড, চক্রবেরিয়া, লান্সডউন এলাকার বিভিন্ন জায়জায় যেখানে করোনার প্রকোপ বেশি , সেখানে লকডাউন ডাকা হয়েছে। সরকারের এই ব্যাবস্থাকে অনেকে কুর্নিশ জানালেও , বেশকিছু মানুষ  এটা ভালোভাবে নিচ্ছেন না।

তাদের অভিযোগ, লক ডাউন ডাকা হলেও, সেখানে করোনা রোগের থেকে রাজনীতিকে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। তাদের দাবি, আমাদের রাজ্যের অনেক জায়গা আছে, যেখানে করোনা রোগীর সংখ্যা অনেক বেশি। এবং তা মহামারি আকার ধারণ করেছে,কিন্তু সেখানে কোন নামজাদা রাজনীতিবিদ থাকার জন্যএবং সে,বা তার পার্টির কর্মীদের কাজে যাতায়াতে অসুবিধা যেন না হয়, সেই কারণে সেইসব এলাকাগুলোতে কোনরকম লোকডাউন হচ্ছে না। যেটা সত্যি আতঙ্কের বিষয়।