তিন বীরের আত্ম বলিদান

আয়ুষ রায়

লাহোরে রাজগুরু ও সুখদেব সহ ভগত সিং এর ফাঁসি কার্যকর করা হয় ১৯৩১ সালের ২৩শে মার্চ। তাঁর মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আন্দোলনরত সমর্থকরা তাঁকে ‘শহীদ’ উপাধিতে ভূষিত করে। ভগত সিংকে সুতলেজ নদী তীরে হুসেইনিওয়ালায় সমাধিস্থ করা হয়। বর্তমানে ভগত সিং এর স্মৃতিসৌধটি ভারতের মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতির প্রতি নিবেদিত।

এই তিন জন বীর বিপ্লবী কে ফাঁসি কাঠে ঝোলায় ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদ। কারণ তাঁরা বিপ্লবের ডাক দিয়েছিলেন, ভারতবর্ষে শ্রমিক-কৃষক ও মেহনতি মানুষের রাজত্ব প্রতিষ্ঠার কথা বলেছিলেন এবং সাম্রাজ্যবাদ কে ধ্বংস করার লড়াইয়ে আন্তর্জাতিক শ্রমিক শ্রেণীর সাথে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার করেছিলেন।

IMG-20190323-WA0003

১৪ ফেব্রুয়ারিতে ভগত সিং, রাজগুরু আর শুকদেবকে লাহোরে ফাঁসির সাজা শোনানো হয়েছিল। তাঁদের ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদীরা ফাঁসি দিয়েছিল ১৯৩১ সালের ২৩শে মার্চ। ‘দ্য ট্রিবিউন’ পত্রিকার প্রথম পাতায় সে খবর প্রকাশিত হয়েছিল।