ডাইনি অপবাদ দেওয়ায় এক সাধু সহ পাঁচ জন গ্রেপ্তার

জ্যোতির্ময় মন্ডল ; পুর্ব বর্ধমান : ডাইনি অপবাদ দিয়ে এক বৃদ্ধাকে মানসিক নির্যাতন ও মেরে ফেলার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মন্তেস্বর ব্লকে মাঝের গ্রামে। ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে ওই পরিবার প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়।গত কাল মন্তেস্বর ব্লক প্রশাসন পুলিশ প্রশাসন গ্রামে গিয়ে অনেকে সতর্ক করেন, ও সচেতনতা প্রচার করেন প্রশাসন। প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে দিন কয়েক আগে এক সাধু গ্রামে এসেছিলেন।তিনি ওই বৃদ্ধা মহিলাকে চিহ্নিত করার পর থেকেই বাসিন্দাদের একাংশ তাকে অপবাদ দিতে শুরু করেন বলে অভিযোগ।পরিবারের আরও অভিযোগ মানসিক নির্যাতন করা হচ্ছিল ওই মহিলাকে। মারধরের আশঙ্কা করা করছিলেন মহিলা। গত কাল বিকালে ঐ গ্রামে যান মন্তেস্বর ব্লকের বিডিও সমীর কুমার হালদার, মন্তেস্বর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি প্রতিমা সাহা স্থানীয় প্রধান বিপুল রায়। তবে অভিযুক্তরা আগেই গ্রাম ছেড়ে পালায় দাবি পুলিশের।প্রশাসনের তরফে ওই এলাকায় মানুষকে ভুল ধারনা নিয়ে সচেতন করা হয়। ও সতর্ক করে দেওয়া হয়, পরবর্তী সময়ে ওই মহিলা বা তার পরিবারের সদস্যদের প্রতি কোন খারাপ আচরন না করা হয়। গত কাল গভীর রাতে মন্তেস্বর থানার মাননীয় আধিকারিক সৈকত মন্ডল এর নেতৃত্বে মন্তেস্বর থানার পুলিশ প্রশাসন এক সাধু সহ ওই গ্রামের চারজনকে গ্রেপ্তার করেন। গ্রামের চার জন অভিযুক্ত ব্যক্তিদের নাম রাজুধারা, কেনারাম মাঝি , হারু মাঝি , সুকুমার মাঝি। এদের সবার বাড়ি মাঝের গ্রামে।
সাধু বাড়ি কাটোয়া থানার পলসোনা গ্রামে। সাধুর নাম ধনঞ্জয় বৈরাগ্য।
কাটোয়ার থানার সহযোগীতাই গতকাল রাতে মন্তেস্বর থানার ওসি সৈকত মন্ডল ও পুলিশ প্রশাসন সাধুকে গ্রেপ্তার করেন।আজ মন্তেস্বর থানার পুলিশ সাধু সহ পাঁচ জনকে কালনা মহকুমা আদালতে পাঠানো হয়েছে ।