“শেষ সুযোগ প্রার্থনা পাক্ প্রধানমন্ত্রীর, মোদীর কূটনীতিতে কোনঠাসা হয়ে আত্মসমর্পণ”

হেমাশ্রী বিশ্বাস, কলকাতা:

শেষ সুযোগ প্রার্থনা – শান্তিকে সুযোগ দিন। আবেদন করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি বলেন, তিনি তার কথা রাখবেন। পুলত্তয়ামার আত্মঘাতী জঙ্গি হানার পর তিনি বলেছিলেন যে যুক্তিযুক্ত তথ‍্য প্রমাণ দিলে তিনি তৎপরতার সঙ্গে ব‍্যবস্হা নেবেন।

উল্লেখ্য পাক প্রধানমন্ত্রী দফতর এক বিবৃতিতে বলেছেন এখন ভারতে নির্বাচনের জন‍্য শান্তি অধরা মোদির উচিত শান্তিকে সুযোগ দেওয়া।

এবার সরাসরি পাক প্রধানমন্ত্রীর নাম করে তার উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় সতর্ক বানী ছুড়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ইতিমধ্যে রাজস্থানের টংকের জনসভা থেকে ইমরান খানকে তোপ দেগে তাঁর প্রশ্ন ‘প্রধানমন্ত্রী হত্তয়ার পরে আমি ইমরান খানকে অভিন্দন জানিয়ে এক সঙ্গে দারিদ্র্য এবং অশিক্ষার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কথা বলেছিলাম। ‘

ইমরান তখন বলেছিলেন, ‘তিনি একজন পাঠান সন্তান এবং নিজের কথা রাখবেন। তিনি সত্যিই নিজের কথা রাখতে পারেন কি না, এবার সেটা প্রমাণ করার সময় এসেছে।’

পুলত্তয়ামা কান্ডের পর কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে খোঁচা দিয়েছিলেন ইমরান। এদিন তার পাল্টা মোদি বলেন, “আমাদের লড়াই কাশ্মীরের মানুষের জন‍্য। আমরা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়ছি, কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে নয়।’ সারা দেশে কাশ্মীরীদের উপরে আক্রমণের ঘটনার তীব্র নিন্দাও করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি এও বলেন, যারা সন্ত্রাসে মদত দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে লড়াই চলবে।

একই সঙ্গে মোদি এটাও বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, পাকিস্তানের থেকে হিসেব বুঝে নেত্তয়া হবে। ইতিমধ্যে ভারতের তরফ থেকে নেওয়া কড়া পদক্ষেপে পাকিস্তান চাপে পড়েছে বলেও দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর আরও দাবি পুলত্তয়ামা হামলার একশো ঘন্টার মধ্যেই জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা।
বদলা নেওয়ার জন‍্য সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে।

এখন এটাই দেখার পাকিস্তান যেটা মুখে বলেছে আদতে সেটা করবে কি না।