পরিষেবায় খামতি না রাখতে জোমেটো ডেলিভারি কর্মীদের অশেষ লাইন

মালোবিকা বিশ্বাস :-

ঘরে বসেই রকমারি খাবার হাতের মুঠোয় চলে আসে ঠিক ভূতের রাজা দিল বরের মত। যেখানে যেমন চাই সব খাবারই পেয়ে যাবেন এক ঝলকে। এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছে ফুড ডেলিভারি অ্যাপ্লিকেশনগুলি। খাবারকে একেবারে রেস্তোরাঁর রান্না ঘর থেকে সরাসরি পৌঁছে দেয় আপনার মুখের সামনে এই ফুড ডেলিভারি অ্যাপ্লিকেশন। দেশের ৬৩টি শহরে খাবার সরবরাহ করে এই জোমেটো। প্রথমে বড় শহরগুলিতে শুরু করে আর এখন শহরতলিতেও পৌঁছে যাচ্ছে জোমেটোর ডেলিভারি কর্মীরা। সম্প্রতি এই কোম্পানি তাদের টুইটারে একটি ছবি পোস্ট করেছে যা ভাইরালও হয়েছে।

বহুদিন আগে অমরেশ লাহিড়ীর গানে শোনা গিয়েছিল “যেখানে যাও সেখানে যাও লাইন লাগাও” এই কথাটা সত্য করে দিল এই ফুড ডেলিভারি অ্যাপটি। দুইদিন আগে জোমেটো ইন্ডিয়া দ্বারা প্রকাশ করা একটি ছবিতে দেখা যায় বাবুর্চি নামক একটি বিখ্যাত রেস্তোরাঁর সামনে বিশাল লাইন এই জোমেটো ডেলিভারি কর্মীদের। জোমেটো এই ছবিটি এক আকর্ষণীয় ক্যাপশন সহ পোস্ট করে সেখানে লেখা হয় ” আপনার শহরের কোন রেস্তোরাঁর বাইরে এমন লাইন পড়ার যোগ্য? ”

IMG-20190418-WA0001

হায়দ্রাবাদের এই বিখ্যাত রেস্তোরাঁর বাইরে এই অনন্ত লাইনই বলে দিচ্ছে এই রেস্তোরাঁটির জনপ্রিয়তা কতটা। বাবুর্চি (Bawarchi) মূলত বিরিয়ানির জন্য বিখ্যাত। প্রতিদিন ২০০০ প্লেট বিরিয়ানির অর্ডার আসে এই রেস্তোরাঁতে।

জোমেটোর বার্ষিক প্রতিবেদনে বেশ কিছু তথ্য তারা প্রকাশ করেন মানুষের খাবার অর্ডার এর অভ্যাস সম্পর্কে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ এর বিজয়ওয়াড়ার মানুষ বেশি অর্ডার করেন ব্রেকফাস্ট। আবার ইন্দোরে মধ্যরাতে খাদ্য সরবরাহের অর্ডার খুব বেশি পরিমাণে আসে।
হায়দ্রাবাদের সেরা বিরিয়ানি এই রেস্তোরাঁতেই তৈরি হয় বলে মানুষ জানিয়েছে (best biryani in Hyderabad)