সাগরে মিলায় ঢেউ আবার ফিরবে বলে

প্রসেনজীৎ চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি কলকাতা প্রেস ক্লাবে সোনারপুরের “জাগরণী” সাহিত্য সংস্থা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করল “সাগরে মিলায় ঢেউ আবার ফিরবে বলে” নামের একটি গবেষণামূলক গ্রন্থ । সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করলেন জাগরণীর চাণক্য আচার্য মহাশয় । গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন করেন বিশিষ্ট কবি ও প্রাবন্ধিক সব্যসাচী দেব মহাশয়, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী নীলাঞ্জন দত্ত মহাশয় এবং বিজ্ঞানী মেহের ইঞ্জিনীয়ার মহাশয় । ১৯৫০ সাল থেকে শুরু হওয়া দক্ষিণ সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে রক্তক্ষয়ী ‘তেভাগা’ সংগ্রামের ইতিহাস ও তার গুরত্বপূর্ণ চরিত্রগুলিকে গবেষণাধর্মী এই গ্রন্থটিতে তুলে ধরা হয়েছে ।
চাণক্য আচার্য মহাশয় তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন নানা বাধা-বিপত্তি অতিক্রম করে গ্রামগঞ্জ ঘুরে সংগৃহীত তথ্য, প্রত্যক্ষদর্শীদের প্রদত্ত বয়ান এবং পত্রপত্রিকা থেকে প্রাপ্ত লেখা ও রিপোর্টের ভিত্তিতে রচিত মূল রচনাটির সঙ্গে গ্রন্থে রয়েছে ছয় শহীদের বিস্তারিত অত্যন্ত প্রাণবন্ত জিবঙ্কথা, কয়েকজন নেতৃস্থানীয় বেক্তিত্ত্বের বক্তব্য, সাক্ষাৎকার, রচনা, টুকরো টুকরো কথা এবং প্রচুর ছবি, সে-সময়ের সংবাদপত্রের রিপোর্ট ও প্রবন্ধ ইত্যাদি । তিনি আরো বলেন বর্তমানের গণআন্দোলন ও বিপ্লবী আন্দোলনের কর্মীরা তাঁদের পূর্বসূরিদের দুঃসহ কঠিন জীবনসংগ্রাম ও চরিত্রের সাধনাকে প্রত্যক্ষ করতে পারবেন এই গ্রন্থের আয়নায়, মনে ও চরিত্রে পাবেন আরো শক্তি । আবার নিকৃষ্ট ভোগবাদের মোহজালে আবিষ্ট তরুণসমাজও এই গ্রন্থের আয়নায় দেখতে পাবেন সত্যিকারের মনুষ্য-জীবন কাকে বলে ।