লোকসভার লড়াইয়ে জনগণের মতামতকে প্রাধান্য রাহুলের

 
হেমাশ্রী বিশ্বাস, কলকাতা :- ২০১৯ লোকসভা ভোট দখলের অভিনবত্ব দেখতে চলেছে দেশবাসী। লোকসভা ভোটে রাহুল গান্ধীর থেকে কি প্রত‍্যাশা, এবারে সরাসরি তাঁকে তা লিখে জানাতে পারবেন নাগরিকেরা। বাংলাতে লিখে ও জানানো যাবে। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম আজ এমন একটি ওয়েবসাইট চালু করেছেন। যেখানে দেশের ১৬ টি ভাষায় মতামত লিখে দিতে পারবেন আম জনতা। তার ভিত্তিতে লোকসভার জন‍্য তৈরী হবে কংগ্রেস ইস্তেহার। দলের নেতাদের বক্তব্য নরেন্দ্র মোদীর মতো ‘অচ্ছে দিন’ আনার কোনো ভুয়ো প্রতিশ্রুতি দিতে চাননা রাহুল গান্ধী। আজ মধ‍্যপ্রদেশে জানিয়েছেন, কোনো মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দেননা। মোদী ৫বছরে ও প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে পারেননি তার জন‍্য লক্ষ মাত্রা ২০২২ সাল পর্যন্ত পিছিয়ে দিয়েছেন। রাহুল কিন্তু সকলের কথা শুনেই ইস্তেহার তৈরি করতে চান। চিদম্বরম জানিয়েছেন অক্টোবর থেকেই রাহুলের তৈরি করা ইস্তেহার কমিটির ২২জন সদস্য দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে দিয়েছে। দেড়শ টি এমন বৈঠক হবে। হোয়াটসঅ্যাপ ও ওয়েবসাইট এর মাধ‍্যম ডিসেম্বর পর্যন্ত মানুষের মতামত নেওয়া হবে। সব মতামতের ভিত্তিতে জানুয়ারির পর থেকে চূড়ান্ত হবে ইস্তেহার। এর আগে বিরোধী জোটের দলেরা মিলে একটি অভিন্ন কর্মসূচি তৈরির পরিকল্পনা ছিলো। চিদম্বরম অবস‍্য এই বিষয়টি এড়িয়ে যান এবং বলেন এটি পরের বিষয়। এবার অন‍্য দল ও তাদের মতো করে ইস্তেহার তৈরী করবে। এই প্রথম মানুষের মত নিয়ে ইস্তেহার তৈরি হচ্ছে।