মানসিক অবসাদের জেরে আত্মঘাতী টলিউড অভিনেত্রী

 

দেবলীনা নন্দী, কলকাতা-৷ আজ বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ির চার্চ রোডের একটি হোটেল থেকে উদ্ধার করা হয় পায়েলের মৃতদেহ।
বৃহস্পতিবার পায়েলের মৃত্যুর খবর পেয়ে শিলিগুড়ি চলে যান তার বাবা এবং আত্মীয়রা। তার বাড়ি কলকাতার গড়িয়াতে। তিনি অন্য একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন বলে জানা যায়। তার বাবা জানান গ্যাংটক যাবেন বলে একাই বাড়ি দিয়ে বেরোন পায়েল।
পরিবার সূত্রে জানা যায় স্বামীর সাথে ডিভোর্সের মামলা চলছে পায়েলের। ছেলের কাস্টডি নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই মানসিক অবসাদে ছিলেন বলে দাবী করেন পায়েলের বাবা প্রবীর গুপ্ত।
তার বাবা শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে জানান, শ্যুটিংয়ের জন্য রাচী যাওয়ার কথা ছিল পায়েলের। কিন্তু তিনি হটাৎ শিলিগুড়ি কেন আসেন সে বিষয় এখন স্পষ্ট হয়নি।
বৃহস্পতিবারই ময়নাতদন্তের জন্য শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতাল থেকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠান হয়। ময়নাতদন্তের পরে পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় পায়েলের মৃতদেহ।