বাবরির নিচে ছিলনা কোনও মন্দির, বক্তব্য পেশ তৎকালীন প্রত্নতাত্ত্বিকের

 

হেমাশ্রী বিশ্বাস, কলকাতা

বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ২৬ বছর পর জানা গেল সেখানে নাকি কোনদিন কোনও মন্দিরের অস্তিত্ব ছিলনা। এ সাক্ষাৎকারে প্রত্নতাত্ত্বিক বিশেষজ্ঞ সুপ্রিয় ভার্মা ও জয়া মেনন একথা জানিয়েছেন।

প্রত্নতাত্ত্বিক সুপ্রিয় সরকার জানিয়েছেন যে বিশেষজ্ঞরা খননকার্য চালিয়েছিলেন আসলে তাদেরকে মন্দিরের পক্ষে বলতে বাধ্য করেছিল তৎকালীন বিজেপি সরকার।

ওই দলটির নেতৃত্বে যিনি ছিলেন সেই বি আর মানি কে এলাহাবাদ হাইকোর্ট অপসারিত করেছিল। কিন্তু মন্দিরের পক্ষে বলার পুরস্কার হিসেবে বর্তমান মোদী সরকার মানিকে জাতীয় জাদুঘরের মহা পরিচালক পদে আসিন করেন। এই দুই প্রত্নতাত্ত্বিক সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের তরফ থেকে খননকার্য চালাচ্ছিলেন। তাদের দাবি বাবরি মসজিদের নিচে আসলে ছোট একটি মসজিদই ছিল। আর সেই স্বপক্ষে মিলেছে অনেক প্রমাণ।

২০০৩ সালে ওখানে খননকার্য চালিয়ে ভারতের প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগ দাবি করেছিল সেখানে ৩টি রাম মন্দিরের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে তাঁরা জানান যে সময় ভারতের প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগের কাজের সময় তাদের উপর বিজেপি সরকার চাপ সৃষ্টি করেছিলেন।