ট্রোলড হলেন দীপিকা,তবে কী সাজ নকল করেছেন তিনি?

দেবলীনা নন্দী,কলকাতাঃ বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ে না রণবীর -দীপিকার বিয়েতে। একেদিকে তো গুরুগ্রন্থসাহেব কে লেক কেমোয়ে নিয়ে গিয়ে আসেন শিখ সংগঠনের নজরে অন্যদিকে তার ব্যাঙ্গালুরুর প্রথম রিসেপশন পার্টিতে তার সাজ নিয়ে বিতর্কের সম্মুখীন হতে হয় তাকে।

দীপিকা -রণবীরের বিয়ে নিয়ে প্রথম থেকেই সকলের উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। ১৪ই নভেম্বর এবং ১৫ই নভেম্বরে ইতালির লেক কেমোয় তাদের বিয়ের পর ১৬ই নভেম্বরে
তারা নিজেদের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে নিজেদের বিয়ের ছবি পোষ্ট করেন। মুহুর্তের মধ্যেই ছবি শেয়ার হতে শুরু করে।
বিয়ের পরে ব্যাঙ্গালুরুর লীলা প্যালেসে তাদের প্রথম রিসেপশন।রাজপ্রাসাদ সম লীলা প্যালেসে তাদের বসার আসনের জায়গা সাজানো হয়েছে লাল গোলাপ দিয়ে। এই দিন রণবীর পড়েন আগাগোড়া এমব্রয়ডারী করা নীল শেরওয়ানী এবং দীপিকা পড়েন সোনালী
রঙয়ের শাড়ি ও সাদা ফুলহাতা হাইনেক সাদা ব্লাউজ।এর সাথে সবুজ রঙয়ের পাথরের
গয়না। কিন্তু দীপিকার সাজ সকলের সামনে আসতেই পপাত্ ধরণীতল। মুহুর্তের মধ্যেই শুরু হয় ট্রোলিং। ভক্তদের দাবী দীপিকার সাজ, চুলের খোঁপা,মাথায় ছোট্ট টিপ সবই মিলে যাচ্ছে অনুস্কা শর্মার দিল্লী রিসেপশনের সাথে। গয়না গুলোও নাকি অনেকটা একই রকম দেখতে। এমনকি দীপিকা যে
সোনালী রঙের শাড়ি পড়েছেন এবং তার সাথে যে ব্লাউজ পড়েছেন তা ও অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত তার একটি ছবির প্রচারে পড়েছিলেন। তাদের ব্লাউজের ডিজাইনও নাকী এক।
অনেকে আবার দুষছেন ডিজাইনার সব্যসাচীকে। তাদের মতে সব্যসাচীর ডিজাইন সেন্স বদলানো উচিৎ। কারণ তিনি দীপিকার এই সাজ এবং গয়না মোটেও একে অপরের সাথে মানানসই নয়। তাছাড়া অনুস্কা এবং দীপিকা দুজনেরই রিসেপ্টশনে যেভাবে চুল বাঁধা হয়েছে এবং তাতে ফুল লাগানো হয়েছে তাতে অনেকেরই আপত্তি আছে।