গর্ভাবস্থায় শরীরিক মিলন নিয়ে কিছু কথা।

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ- গর্ভাবস্থায় শারিরীক মিলন এটা নিয়ে রয়েছে বিভিন্ন মত পার্থক্য।আসুন জেনে নেওয়া যাক গর্ভাবস্থায় শারীরিক মিলন নিরাপদ কিনা?এব্যাপারে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা কি বলছেন?চলুন জেনে নিই।
১.গর্ভাবস্থায় মিলন ক্ষতিকর নয় – যতক্ষন না আপনার চিকিৎসক নিষেধ করছেন।
২.স্বাভাবিক অবস্থায় যে সকল আসনে শাররীক সম্পর্ক করা হয় গর্ভাবস্থায় সেই পদ্ধতি অবলম্বন ঠিক নয়।
৩.যদি গর্ভকালীন সময়ে রক্তক্ষরন দেখা যায় তাহলে শাররীক মিলন থেকে বিরত থাকা উচিত।
৪.রক্তক্ষরণের সময় শারীরিক মিলন ঘটলে বীর্যের সংস্পর্শে প্রোস্টাগ্ল্যান্ডিনস সংকুচিত হয়ে প্রাক প্রসব বেদনায় পরিনত হতে পারে।
৪.যৌন সংক্রমণ থাকলে শারীরিক মিলন থেকে বিরত থাকুন।
৫.যদি জরায়ুর মুখ খুলে যায় তাহলে মিলন থেকে বিরত থাকুন।এসময় বিভিন্ন রোগ সংক্রামনের সম্ভাবনা থাকে।
৬. যদি চিকিৎসক আপানাকে গর্ভকালীন সহবাস থেকে বিরত থাকতে বলেন। তাহলে ভালো করে জানার চেষ্টা করুন তিনি শারীরিক মিলন থেকে বিরত থাকতে বলছেন নাকি যৌন উত্তেজনা থেকে বিরত থাকতে বলছেন।
৭.প্রথম তিন মাস সাধারনভাবে শারীরিক মিলন থেকে বিরত থাকা ভালো।যদি কোনো কারণে রক্তক্ষরণ শুরু হয়ে যায় তা চিন্তার কারণও বটে।
৮.অনেক নারীর গর্ভধারনের প্রাথমিক ধাপে (প্রথম তিনমাস সময়ে) যদি অল্প পরিমান রক্তক্ষরন হয় তাহলে সাধারণভাবে চিকিৎসকদের মতে কমপক্ষে সপ্তাহ দুই শারীরিক মিলন বা যৌন উত্তেজনা থেকে দূরে থাকুন।
সর্বশেষ একটা কথা গর্ভাবস্থায় সহবাস করা যেতেই পারে।তবে উপরের কথাগুলি মনে রেখে,অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে শারীরিক মিলনে আবদ্ধ হন।