ক্ষত সারছে ওজন স্তরের!!

 

রুমি সরকার উত্তর চব্বিশ পরগনা : একটু একটু করে সারছে ওজন স্তরের ক্ষত । রাষ্ট্রপুঞ্জের প্রকাশিত একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছে , ২০০০ সাল থেকে প্রতি দশকে ১ – ৩ শতাংশ হারে ওজন স্তরের ক্ষত কমছে ।

বায়ুমণ্ডলের স্ট্যাটোস্ফিয়ারে ওজন গ্যাসের এই স্তরটি চাদরের মতো ভূপৃষ্ঠকে রক্ষা করে । সূর্যের ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মির পথ আটকে রাখে স্তরটি । এই রশ্মিই ক্যানসারের অন্যতম কারণ ।

দীর্ঘদিন ধরে মানুষের তৈরি নানা ধরনের রাসায়নিক গ্যাসের প্রভাবে ভেঙে যাচ্ছিল এই ওজন স্তর । দুই মেরু অঞ্চলে ক্ষত দেখা দিয়েছিল । কুমেরুর উপরের অংশটি ছিল সবচেয়ে ক্ষতি গ্রস্ত । ১৯৮৭ সালের ২৬ আগষ্ট স্বাক্ষরিত হয় মন্ট্রিল চুক্তি । সেই সময়ে ক্লোরোফ্লুরো কার্বনের মতো গ্যাসের ব্যবহার অবাধ ছিল । নিয়ম করে এই ধরনের কিছু গ্যাস কে নিষিদ্ধ করা হয়।

মন্ট্রিল চুক্তি অনুযায়ী , প্রতি চার বছর অন্তর ওজন স্তরের অবস্থা খতিয়ে দেখা হয় । রাষ্ট্র পুঞ্জের পরিবেশ সংক্রান্ত দফতর এবং আন্তরজাতিক আবহাওয়া সংগঠনের মতে , প্রতি দশকে ১-৩ শতাংশ হারে ওজন স্তরের ক্ষত সারছে । আর এভাবে এগোলে , ২০৩০ সালের মধ্যে উত্তর গোলার্ধ , ২০৫০ সালের মধ্যে দক্ষিণ গোলার্ধ এবং দুই মেরু অঞ্চলে ২০৬০ সালের মধ্যে ওজন স্তরের ক্ষত সম্পৃর্ণ ঢেকে যাবে বলে আশাবাদী বিজ্ঞানীরা ।