কাউন্টি খেলে ইংল্যান্ড সফরের প্রস্তুতি বিরাটের।

রিয়া বাগঃ- সেরার শিরোপা ধরে রাখতে গেলে তাঁকে সব দেশেই সফল হতে হবে সেটা ভালো ভাবেই জানেন বিরাট। তাই কাউন্টি খেলায় উদ্যোগী বিরাট কোহলি।
দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে প্রস্তুতি ম্যাচ না রাখার খেসারত দিতে হয়ে ছিল টিম ইন্ডিয়াকে। হারতে হয়েছিল তিনটি টেস্ট ম্যাচের প্রথম দুটিসহ সিরিজও । কিন্তু তৃতীয় টেস্ট ম্যাচ জয় দিয়ে শুরু করে ৫-১ এ একদিনের সিরিজ ও ২-১ এ টি টোয়েন্টি সিরিজ জয় দিয়ে শেষ হয় ইন্ডিয়ার দক্ষিণ আফ্রিকা সফর।
ফলাফল থেকে ভারত অধিনায়কের হয়তো বুঝতে অসুবিধা হয়নি প্রস্তুতি দরকার। ক্রিকেটাররা বিদেশের মাটিতে সফল হতে গেলে চাই পরিবেশকে মানিয়ে নেওয়া । তাই দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের সময় থেকেই তিনি নিজে কাউন্টি খেলার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

IMG-20180326-WA0003
এবার সেই ইচ্ছেই হয়তো পূরণ হতে চলেছে ক্রিকেটের পোস্টার বয়ের। সম্প্রতি বোর্ডের সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অব এডমিনিস্ট্রেটরস (সিওএ)-এর প্রধান বিনোদ রাই সেরকম ইঙ্গিতই দিয়েছেন ।
সম্ভবনা যদি বাস্তব হয়,তাহলে আইপিএল শেষ হলেই ইংল্যান্ড পাড়ি দেবেন বিরাট । খেলতে পারবেন না ভারত-আফগানিস্তান টেস্টেও।
ভারত অধিনায়ক সেরার শিরোপা পেলেও ইংল্যান্ডের মাটিতে একেবারেই স্বচ্ছন্দ নন। পরিসংখ্যান বলছে ইংল্যান্ডের মাটিতে তিনি খেলেছেন ৫ টি টেস্ট ম্যাচ। গড় ১৩.৪০ ,যা তাঁর অন্য সব দেশের বিরুদ্ধে করা সর্বনিম্ন গড়। মোট রান ১৩৪ এবং সর্বোচ্চ ৩৯। এই পরিসংখ্যানটি বিরাটের সাম্প্রতিক ফর্মের সাথে একেবারেই বেমানান । সেই সাফল্যের জন্যই এই কাউন্টি খেলার সিদ্ধান্ত বিরাটের । কারণ, ইংল্যান্ডে বল খুব সুইং এবং সিম করে । অফস্টাম্পের বাইরের বল খেলতেও খুব একটা স্বচ্ছন্দ নন বিরাট ।
যদিও একদিনের ম্যাচে বিরাটের পরিসংখ্যান টেস্টের থেকে ভালো । দেশে ও বিদেশে মিলিয়ে ওডিআই ক্রিকেটে তিনি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলেছেন ২৬ টি ম্যাচ । মোট রান ৯২১। সর্বোচ্চ ১২২। গড় ৪১.৮৬। এর মধ্যে ৩ টি সেঞ্চুরি ও ৪ টি হাফ সেঞ্চুরি ।
এর আগেও কাউন্টি খেলে উপকার পেয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা । বর্তমান দলের অন্যতম দুই সদস্য চেতেশ্বর পূজারা ও আর. আশ্বিন ইতিমধ্যেই খেলে ফেলেছেন কাউন্টি।
এবার বিরাট ছাড়াও খেলতে যেতে পারেন মুরলী বিজয় ও রাহানেও।
টিম ম্যানেজমেন্ট ইংল্যান্ড সফরের জন্যই কাউন্টিকে প্রস্তুতি ম্যাচের গুরুত্ব দিচ্ছেন।
এর আগেও বিভিন্ন প্রাক্তন ক্রিকেটার বিরাটকে কাউন্টি খেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন । তাই এবার বিরাটের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন তাঁরা ।
এখন দেখার আগের বার যে জেমস অ্যান্ডারসন এবং স্টুয়াট ব্রড বিরাটকে সমস্যায় ফেলেছিলেন এবার বিরাট তাদের কতোটা সমস্যায় ফেলেন।